bangladesh
 05 Jul 18, 05:43 PM
 116             0

গৃহবধূকে পুড়িয়ে হত্যার দায়ে ধামরাইয়ে স্বমীসহ ৬ জনের মৃত্যুদণ্ড।।

গৃহবধূকে পুড়িয়ে হত্যার দায়ে ধামরাইয়ে স্বমীসহ ৬ জনের মৃত্যুদণ্ড।।

নিউজ ডেস্কঃ ঢাকার ধামরাইয়ে যৌতুকের জন্য গৃহবধূকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার দায়ে স্বামীসহ ছয়জনকে মৃতুদণ্ড দিয়েছে আদালত। আজ ঢাকার ৯ নম্বর নারী ও শিশু দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. শরীফ উদ্দিন এ রায় ঘোষণা করেন। এ সময় আসামিদের মধ্যে শুধু নিহত সামিনার (১৮) স্বামী জাফর আদালতে উপস্থিত ছিলেন। অন্য আসামিরা পলাতক রয়েছেন। তারা হলেন- আব্দুর রহিম,জাহাঙ্গীর, খালেক,ফ্যালা মিয়া ও রোকেয়া। মৃত্যুদণ্ডের পাশাপাশি প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ড দেওয়া হয়েছে। মামলা সূত্রে জানা গেছে,২০০৫ সালের ৭ জুন ধামরাই দক্ষিণ পাড়ায় যৌতুকের জন্য গৃহবধূ সামিনাকে আগুনে পুড়িয়ে মারা হয়। এরআগে সামিনার সঙ্গে জাফরের পারিবারিক ভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের আগে যৌতুক দেওয়ার কথা ছিল ১৬ হাজার টাকা। কিন্তু সামিনার বাবা জুরা মিয়া বিয়ের সময় মেয়েরজামাই জাফরকে ছয় হাজার টাকা যৌতুক পরিশোধ করেন। বাকি থাকে ১০ হাজার টাকা। রায়ের অদেশে বলা হয়,বিয়ের পর থেকে আসামি জাফর তার স্ত্রী সামিনাকে যৌতুকের ১০ হাজার টাকা এনে দেওয়ার জন্য চাপ দিতে থাকেন। যেদিন সামিনার গায়ে আগুন দেওয়া হয়,এর তিন দিন আগে থেকে তাকে খাবার দেওয়া হতো না। ঘটনার দিন সামিনা ধামরাইয়ে জাফরের বোন রোকেয়ার বাসায় যান। সেখানে অবস্থান করছিলেন জাফর। একপর্যায়ে সামিনাকে রোকেয়ার ঘরে ঢুকিয়ে দেওয়া হয়। এরপর জাফর,রোকেয়া ও রহিম সামিনার গায়ে কেরোসিন ঢেলে দিয়ে আগুন ধরিয়ে দেন। পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনা হলে মারা যান। মৃত্যুর আগে সামিনার জবানবন্দী দেয়। এ ঘটনায় নিহত সামিনার মা নাজমা বেগম বাদী হয়ে মামলা করেন। এ মামলায় ১১ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য নেওয়া হয়।

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন

')