bangladesh
 21 Oct 18, 02:56 PM
 44             0

কুমিল্লায় মায়ামি হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্ট থেকে মাদকদ্রব্য সহ গ্রেপ্তার ২

কুমিল্লায় মায়ামি হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্ট থেকে মাদকদ্রব্য সহ গ্রেপ্তার ২

নিউজ ডেস্কঃ ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার আলেখারচর এলাকায় অবস্থিত মায়ামি হোটেল এ রেস্টুরেন্ট নামক একটি অভিজাত হোটেল থেকে বিপুল পরিমাণ মাদকদ্রব্য উদ্ধার করেছে র্যােব। এ ঘটনায় র্যাাব বাদী হয়ে আজ রবিবার দুপুরে কুমিল্লা কোতয়ালি মডেল থানায় হোটেল মালিকসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে। অভিযানকালে র্যা ব ওই হোটেলের দুই কর্মচারীকে গ্রেপ্তার করলেও পলাতক রয়েছেন ওই হোটেলের মালিক জেলার বুড়িচং উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপির সভাপতি মোঃ মিজানুর রহমান এবং জেনারেল ম্যানেজার জিএম আল খোমেনী। র্যা ব জানায়,ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়ক সংলগ্ন জেলার আদর্শ সদর উপজেলার আলেখারচর এলাকার মায়ামি হোটেল এ রেস্টুরেন্টে শনিবার রাতে র্যা ব ১১ সিপিসি ২ কুমিল্লার অধিনায়ক স্কোয়াড্রন লিডার মোঃ রেজাউল হক ও সিনিয়র এএসপি শেখ বিল্লাল হোসেনের নেতৃত্বে র্যািবের একটি দল অভিযান পরিচালনা করে। এসময় র্যা ব ওই হোটেলের তৃতীয় তলার একটি স্টোর রুম থেকে ১ হাজার ৯৪৪ ক্যান বিয়ার, ২২ বোতল ফেনসিডিল,৫ বোতল বিদেশি মদ উদ্ধার এবং হোটেলের ২ কর্মচারীকে গ্রেপ্তার করে।

গ্রেপ্তারকৃত কর্মচারীরা হচ্ছেন জেলার বুড়িচং উপজেলার সুন্দ্রম গ্রামের কবির আহমদের ছেলে মোঃ ইয়াছিন হোসেন ২২ ও একই গ্রামের কবির হোসেনের ছেলে মোঃ মহসিন ২০। আজ রবিবার এক প্রেস ব্রিফিংয়ে র্যা ব ১১ সিপিসি ২ কুমিল্লার অধিনায়ক মোঃ রেজাউল হক সাংবাদিকদের জানান,হোটেলের মালিক মিজানুর রহমান ও জিএম আল খোমেনী এবং গ্রেপ্তারকৃত ২ জনসহ মোট চারজনের বিরুদ্ধে কোতয়ালি মডেল থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ মামলার বাদী র্যা ব ১১ সিপিসি ২ কুমিল্লার ডিএডি মোঃ রবিউল হক। এ ঘটনার পর হোটেল মালিক মিজানুর রহমান ও জিএম আল খোমেনী পলাতক রয়েছেন। তিনি আরও জানান, জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তারকৃত ২ কর্মচারী জানিয়েছেন,ওই হোটেলটিতে যোগসাজশে দীর্ঘদিন ধরে মাদকের ব্যবসা পরিচালিত হয়ে আসছিল। কোতয়ালি মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ আবু ছালাম মিয়া পিপিএম জানান,পলাতক আসামিদের গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান চলছে।

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন

')