bangladesh
 06 Dec 18, 07:50 AM
 10             0

মিয়ানমার মন্ত্রীর বাংলাদেশ ও ইসলামবিরোধী মন্তব্যের প্রতিবাদ জানাতে রাষ্ট্রদূতকে তলব॥

মিয়ানমার মন্ত্রীর বাংলাদেশ ও ইসলামবিরোধী মন্তব্যের প্রতিবাদ জানাতে রাষ্ট্রদূতকে তলব॥

নিউজ ডেস্কঃ বাংলাদেশ ও ইসলামের বিরুদ্ধে মিয়ানমারের ধর্মমন্ত্রীর অবমাননাকর মন্তব্যের প্রতিবাদ জানাতে দেশটির রাষ্ট্রদূত লুইন উ কে গতকাল পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব করা হয়েছে। মিয়ানমারের ধর্মমন্ত্রী থুরা উ অং কো গত মঙ্গলবার নেইপিডোতে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে বলেন বাংলাদেশে ৭ লাখ রোহিঙ্গা আছে। দেশটি রোহিঙ্গাদের ফেরত যেতে বাধা দিচ্ছে। কেননা বাংলাদেশ এর মাধ্যমে টাকা আয় করছে। মন্ত্রী বলেন,বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গা যুবকদের ব্রেইনওয়াশ করা হচ্ছে। রোহিঙ্গা যুবকরা যেকোনো সময় মিয়ানমারের দিকে অগ্রসর হতে পারে। এর আগে এক শেষকৃত্য অনুষ্ঠানে মিয়ানমারের ধর্মমন্ত্রী ইসলামকে চরমপন্থী ধর্ম হিসেবে আখ্যায়িত করে বলেন,এ ধর্ম বৌদ্ধদের জন্য বড় হুমকি। বৌদ্ধরা একজনকেই বিয়ে করে এবং দুই-একটি সন্তান নেয়। কিন্তু চরমপন্থী ধর্মের অনুসারীরা তিন চারটি বিয়ে করে ১৫ থেকে ২০টা সন্তান নেয়। এভাবে চলতে থাকলে তিন,চার বা পাঁচ দশক পর বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা মিয়ানমারে সংখ্যালঘু হয়ে পড়বে। ধর্মমন্ত্রী থুরা উ অং কোর বক্তব্যের প্রতিবাদ জানাতে গতকাল বুধবার মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতকে ডেকে পাঠান পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব মেরিটাইম অ্যাফেয়ার্স রিয়ার অ্যাডমিরাল অব: খুরশীদ আলম। রাষ্ট্রদূতকে বলা হয়েছে,মিয়ানমারের মন্ত্রীর মন্তব্য অগ্রহণযোগ্য। তার বক্তব্য মুসলিমদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করেছে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ডেকে পাঠানো হলেও গতকাল প্রথা ভেঙে রাষ্ট্রদূতকে ইচ্ছাকৃতভাবে চা পরিবেশন করেই বিদায় জানানো হয়।

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন

')