business
 22 May 17, 10:24 AM
 243             0

আগামী অর্থবছরে নিত্যপণ্য ও সেবা ভ্যাটমুক্ত হবে।।  

আগামী অর্থবছরে নিত্যপণ্য ও সেবা ভ্যাটমুক্ত হবে।।   

নিউজ ডেস্কঃ আগামী অর্থবছরে (২০১৭-১৮) ভোজ্য তেল, চিনি, লবণ থেকে শুরু করে আটা-ময়দা, সব ধরনের মসলা ও ফল, গবাদি পশু ও হাঁস-মুরগির মাংস এবং জীবন রক্ষাকারী গুরুত্বপূর্ণ ওষুধে ভ্যাট অব্যাহতি সুবিধা দেওয়ার প্রস্তাব থাকছে। প্রস্তাব অনুযায়ী আড়াই কেজি পর্যন্ত প্যাকেটজাত তরল দুধ, ডিম, পেঁয়াজ, রসুন থেকে শুরু করে প্রায় সব ধরনের সবজিও এ সুবিধা পাচ্ছে আমদানি ও সরবরাহ পর্যায়ে। খেজুর, আঙুর, আপেল, আনারস, আমসহ বিভিন্ন ধরনের ফলও পাচ্ছে একই সুবিধা। আদা, জিরা, লবঙ্গ, ধনিয়া, দারচিনি, এলাচসহ অন্যান্য মসলায় আমদানি ও সরবরাহ পর্যায়েও ভ্যাট থাকছে না। বার্লি, ভুট্টা, ধান,সব ধরনের চাল, মুড়ি, গম ও গমের ময়দা ভ্যাট অব্যাহতি সুবিধা পাচ্ছে। ফল,সবজি, মসলা ও মাংসের ক্ষেত্রেও ভ্যাটমুক্ত সুবিধা মিলবে আড়াই কেজি পর্যন্ত। অর্থাৎ একসঙ্গে আড়াই কেজির বেশি এসব পণ্য না কিনলে ভ্যাট দিতে হবে না। শুধু নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যই নয়, ফুল ও ফুলের তোড়া,পাটজাত পণ্য এবং কৃষি খাতে ব্যবহৃত প্রায় সব ধরনের বীজ, সেচ ও কীটনাশককে নতুন অর্থবছরে ভ্যাট থেকে অব্যাহতি দেওয়ারও প্রস্তাব আসছে। এ ছাড়া ফাস্ট ট্র্যাকভুক্ত সরকারের ১০ প্রকল্প, হাইটেক পার্ক, অর্থনৈতিক অঞ্চল এবং সরকারি-বেসরকারি অংশীদারি বা পিপিপিতে বিনিয়োগকারীদের জন্য নানা ক্ষেত্রে ভ্যাট অব্যাহতি সুবিধা থাকছে।

নতুন ভ্যাট আইনের আওতায় নতুন অর্থবছরের বাজেটে যেসব পণ্য ও সেবাকে ভ্যাট অব্যাহতি সুবিধা দেওয়ার প্রস্তাব থাকবে তার একটি তালিকা তৈরি করেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত এবং এনবিআর চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমানের সই করা ওই তালিকাটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে উপস্থাপন করা হয়েছে গত ১৪ মে। তাতে এসব পণ্য ও সেবাকে ভ্যাট অব্যাহতি সুবিধা দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। এনবিআর সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। নিত্যপ্রয়োজনীয় এসব পণ্য ও সেবাকে ভ্যাট অব্যাহতি দেওয়া হলে বাজারে নতুন করে জিনিসপত্রের দাম বাড়বে না বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন

')