bangladesh
 29 Jan 19, 04:36 AM
 43             0

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেও কাজ হয়নি॥টাঙ্গাইলের মির্জাপুর হাসপাতালের ১৮ চিকিৎসক ১৩জনই অনুপস্থিত  

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেও কাজ হয়নি॥টাঙ্গাইলের মির্জাপুর হাসপাতালের ১৮ চিকিৎসক ১৩জনই অনুপস্থিত   

নিউজ ডেস্কঃ প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেও কাজ হয়নি। টাঙ্গাইল জেলার মির্জাপুর উপজেলা হাসপাতালের ১৮ চিকিৎসক ১৩জনই অনুপস্থিত ছিলেন গতকাল । জানাগেছে গতকাল সোমবার সকালে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মো. একাব্বর হোসেন এমপি টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে উপজেলা সরকারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আকস্মিক পরিদর্শনে যান। এ সময় হাসপাতালের ১৮ জন চিকিৎসকের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মাত্র ৫ জন। চিকিৎসকদের অনুপস্থিত ও হাসপাতালের চিকিৎসাসেবার চিত্র দেখে এমপি মহোদয় অসন্তোষ প্রকাশ করেন। বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা রোগী ও তাদের স্বজনরা হাসপাতালের নানা অনিয়ম, দুর্নীতি ও অব্যবস্থপনার চিত্র এমপি মহোদয়ের কাছে তুলে ধরেন বলে জানা গেছে। অভিযোগে জানা গেছে, মির্জাপুর সরকারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন অনিয়ম, দুর্নীতি, স্বজনপ্রীতি এবং নানা অব্যবস্থাপনা চলে আসছে। রোগীদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে আজ সোমবার সকাল দশটার সময় স্থানীয় সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা একাব্বর হোসেন এমপি হাসপাতাল পরিদর্শনে গিয়ে ঘটনার সত্যতা পেয়েছেন। রোগী ও এলাকার লোকজনের অভিযোগ এই হাসপাতালের অধিকাংশ ডাক্তার অফিস ফাঁকি দিয়ে বিভিন্ন ক্লিনিকে বসে রোগী দেখে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে।

 

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. শাহরিয়ার হোসেন সাজ্জাতকে হাসপাতালের চিকিৎসা সেবার মান বৃদ্ধি ও ডাক্তার-কর্মচারীদের নিয়মিত উপস্থিতিসহ বিভিন্ন দিক নির্দেশনা দিয়ে এমপি মহোদয় চলে আসেন। এদিকে এমপি মহোদয় চলে আসার মির্জাপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আজগর হোসেন দুপুরে আবার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরিদর্শনে যান। তিনিও প্রায় একই চিত্র দেখেন বলে জানা গেছে। এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা ডা. মো. শাহরিয়ার হোসেন সাজ্জাতের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, নানা সমস্যায় জর্জরিত এই হাসপাতালটি। ১৮ জন চিকিৎসকের মধ্যে ৬ জন রয়েছেন বিভিন্ন এলাকায় প্রেষনে। একজন গত তিন বছর ধরে অনুপস্থিত। যারা রয়েছেন তারা শিফটে কাজ করেন। হাসপাতালের সেবার মান বৃদ্ধি ও চিকিৎসক ও কর্মচারীদের উপস্থিতি নিশ্চিত করনসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা বলে তিনি দাবি করেন।

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন

')