international
 07 Jul 18, 06:02 AM
 61             0

বিতর্কিত ধর্ম প্রচারক জাকির নায়েককে ভারতে পাঠাবে না মালয়েশিয়া সরকার।  

বিতর্কিত ধর্ম প্রচারক জাকির নায়েককে ভারতে পাঠাবে না মালয়েশিয়া সরকার।   

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: বিতর্কিত ধর্ম প্রচারক জাকির নায়েককে ভারতে ফেরত পাঠাচ্ছে না মালয়েশিয়া সরকার। দেশটির প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ গতকাল শুক্রবার এই খবর জানিয়েছেন। এই ধর্ম প্রচারককে নিজেদের হেফাজতে নিতে চেয়েছিল ভারতীয় তদন্ত সংস্থাগুলি। কিন্ত মালয়েশিয়া তাকে আপাতত ছাড়ছে না। মাত্র একদিন আগে ভারত সরকারর পক্ষ থেকে জানানো হয়, জাকিরকে দেশে নিয়ে আসার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এজন্য মালয়েশিয়া সরকারের কাছে অনুরোধ করা হয়েছে। ভারত সরকারের অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ গতকাল শুক্রবার এক প্রেস কনফারেন্সে জানান, তাকে মালয়েশিয়াতে স্থায়ীভাবে থাকার অনুমতি দেয়া হয়েছে। তাই যতদিন না তিনি এখানে কোনো গোলমাল করছেন, ততদিন অন্যত্র পাঠানোর ভাবনা আমাদের নেই। ব্যবস্থা নেয়ার পথে হাঁটে ভারত সরকারও। দেশ ছেড়ে মালয়েশিয়ার পুত্রজায়াতে আশ্রয় নেন জাকির। এখন সেখানেই আছেন।

দেশের বিভিন্ন ধর্মীয় গোষ্ঠীগুলোর মধ্যে ঘৃণা এবং বিদ্বেষ ছড়ানোর দায়ে গত বছর জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে ভারতের কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা এনআইএ। অভিযোগপত্রে বলা হয়, তিনি বক্তৃতা ও বিবৃতির মাধ্যমে ধর্মীয় বিদ্বেষ ছড়ানোর পাশাপাশি জঙ্গিবাদে উস্কানি দিয়েছেন। ৫২ বছর বয়সী এই চিকিৎসক ইসলাম ধর্মত্যাগ ও সমকামীদের মৃত্যুদণ্ডের সাজা দেয়া উচিত বলে তার বিভিন্ন বক্তৃতায় উল্লেখ করেন। ইউটিউবের একটি ভিডিওতে তাকে বলতে দেখা যায়, ওসামা বিন লাদেন আমেরিকায় যদি সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে থাকেন, তাহলে তিনি বড় সন্ত্রাসী এবং আমি তার সঙ্গে আছি। গত বছরের জুলাইয়ে ঢাকার গুলশানে হলি আর্টিশান রেস্তোরাঁয় জঙ্গি হামলা হয়। ওই জঙ্গিরা নৃশংস তাণ্ডব চালিয়ে অন্তত ২২ জনকে হত্যা করে। জাকির নায়েকের মালিকানাধীন টেলিভিশন চ্যানেলে জঙ্গিবাদে উস্কানিমূলক বক্তৃতা শুনে উদ্বুদ্ধ হয়ে এই জঙ্গিরা হামলা চালায় বলে অভিযোগ উঠে। পরে বাংলাদেশে পিস টিভির সম্প্রচার বন্ধ করে দেয়া হয়

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন

')