international
 06 Dec 18, 11:46 AM
 9             0

সভ্যতা টিকিয়ে রাখতে জাপানে ফ্রি দেয়া হচ্ছে বসত বাড়ি॥    

সভ্যতা টিকিয়ে রাখতে জাপানে ফ্রি দেয়া হচ্ছে বসত বাড়ি॥      

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ জাপানের পলিসি ফোরামের পরিসংখ্যান বলছে, ২০১৩ সালে জাপানে ৬ কোটি ১০ লাখ বাড়ি ছিল আর বাড়ির মালিক ছিল ৫ কোটি ২০ লাখ। জাপানের জাতীয় নিরাপত্তা এবং সামাজিক নিরাপত্তা ইনস্টিটিউটের পূর্বাভাস বলছে, ২০৬৫ সালের মধ্যে তাদের জনসংখ্যা ১২ কোটি ৭০ লাখ থেকে ৮ কোটি ৮০ লাখে নেমে আসবে। তার মানে তখন বাড়ির প্রয়োজন আরও কমবে। জাপানের তরুণরা শহুরে চাকরির জন্য গ্রামাঞ্চল ছেড়ে যাচ্ছে। এ কারণে দেশটির গ্রামাঞ্চলের বাড়িগুলো ভূতুড়ে বাড়ি হয়ে উঠছে যা আকিয়া নামে পরিচিত।

পূর্বাভাসে বলা হচ্ছে, ২০৪০ সালের মধ্যে জাপানের প্রায় ৯০০টি শহর ও গ্রামের অস্তিত্ব বিলীন হবে। এর মধ্যে ওকুতামা একটি। এ অবস্থায় শহর ও গ্রাম টিকিয়ে রাখার জন্য বিনামূল্যে বাড়ি দিয়ে দেয়াই সবচেয়ে ভালো সিদ্ধান্ত। এ সম্পর্কে ওকুতামাকে আবারও জনবহুল করার কাজে নিয়োজিত সরকারি বিভাগ ওকুতামা ইয়ুথ রেভিটালিজেশনের (ওওয়াইআর) কর্মকর্তা কাজুতাকা নিজিমা বলেন, ২০১৪ সালে আমরা বুঝতে পারি যে, টোকিওর তিনটি শহরের মধ্যে ওকুতামা একটি যা ২০৪০ সালের মধ্যে নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে। ২০১৭ সালে নতুন একটি উদ্যোগ চালু হয়েছে ওকুতামায়। সেখানে ১০০ বছরের পুরনো বাড়িগুলোকে রাস্তার পাশের ক্যাফেতে রূপান্তরিত করা হচ্ছে। আর এসব ক্যাফেতে প্রাচীন কারুশিল্পের জিনিসসহ নানা ধরনের পণ্য পাওয়া যায়। ঘুরতে আসা মানুষদের জন্য জায়গাগুলো আকর্ষণের কেন্দ্র হয়ে উঠেছে।

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন

')