international
 05 Feb 19, 01:04 PM
 14             0

২০২১ সালের মধ্যেই আরো পাঁচগুণ বেশি গতিসম্পন্ন ভয়ঙ্কর ক্ষেপণাস্ত্র বানাবে রাশিয়া॥  

২০২১ সালের মধ্যেই আরো পাঁচগুণ বেশি গতিসম্পন্ন ভয়ঙ্কর ক্ষেপণাস্ত্র বানাবে রাশিয়া॥   

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ পরমাণু অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্রের সরে যাওয়ার জবাব দিতে ২০২১ সালের আগেই শব্দের চেয়েও পাঁচগুণ বেশি গতিসম্পন্ন ভূমি থেকে উৎক্ষেপণযোগ্য ক্ষেপণান্ত্র ও ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র তৈরি করতে হবে রাশিয়াকে। আজ মঙ্গলবার দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী এমন কথা বলেছেন। রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই সোইগু নতুন দুটি ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা নির্মাণে সেনাবাহিনীকে নির্দেশ দিয়েছেন এবং ২০২১ সালের মধ্যে দুটি ক্ষেপণাস্ত্র নির্মাণের কাজ শেষ করতে নিশ্চয়তা চেয়েছেন। এর আগে যুক্তরাষ্ট্র ইন্টারমিডিয়েট-রেঞ্জ নিউক্লিয়ার ফোর্সেস (আইএনএফ) চুক্তি থেকে ছয় মাসের মধ্যে সরে যাওয়ার ঘোষণা দেয়ার পর একই পথ অনুসরণ করল রাশিয়া। গত শনিবার রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেন, ঠাণ্ডা যুদ্ধের আমলের চুক্তিটি থেকে রাশিয়া নিজেকে প্রত্যাহার করে নিয়েছে। টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচারিত পররাষ্ট্র ও প্রতিরক্ষামন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকের সময় তিনি বলেন, চুক্তির মার্কিন অংশীদার ঘোষণা দিয়েছে যে তারা এতে থাকছে না। কাজেই তাদের মতো করে আমরাও নিজেদের প্রত্যাহার করে নিয়েছি। তৎকালীন সোভিয়েত রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে ১৯৮৭ সালে সই হয়েছিল এ চুক্তি।

এতে ভূমি থেকে নিক্ষেপযোগ্য স্বল্প ও মাঝারি পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র ইউরোপ থেকে সরিয়ে নিতে হয়েছিল দুপক্ষকেই। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও গত শুক্রবার বলেন, আইএনএফ চুক্তি মেনে চলার ক্ষেত্রে যে বাধ্যবাধকতা ছিল, যুক্তরাষ্ট্র গত শনিবার থেকে তা আনুষ্ঠানিকভাবে স্থগিত রাখছে। কাজেই এটির ফের বাস্তবায়ন চাইলে বিভিন্ন শর্ত নিয়ে আলোচনায় সম্মত হতে রাশিয়াকে ছয় মাস সময় বেঁধে দেয়ার কথাও জানিয়েছে ওয়াশিংটন। যুক্তরাষ্ট্রের অভিযোগ, মস্কো দীর্ঘদিন ধরে এই চুক্তির লংঘন করে আসছে। বিপরীতে শুরু থেকেই রাশিয়া এ অভিযোগ অস্বীকার করে যাচ্ছে। ওয়াশিংটনের নতুন এ পদক্ষেপ মস্কোর ওপর চাপ বেড়েছে। পর্যবেক্ষকদের আশঙ্কা, এতে ইউরোপকে কেন্দ্র করে অস্ত্র প্রতিযোগিতা বেড়ে যাবে। এশিয়ায় চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যেও উত্তেজনা বাড়তে পারে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প অনেক দিন ধরেই নতুন একটি ক্ষেপণাস্ত্র নিয়ন্ত্রণ চুক্তি করতে এবং সেখানে যুক্তরাষ্ট্র-রাশিয়ার বাইরে অন্যান্য দেশকে অন্তর্ভুক্ত করার আগ্রহ দেখিয়েছেন। এদিকে ভ্লাদিমির পুতিন বলেন, রাশিয়া নতুন করে শব্দের চেয়েও দ্রুতগতিরসহ বিভিন্ন ক্ষেপণাস্ত্র তৈরি করবে। ওয়াশিংটনের সঙ্গে নতুন করে নিরস্ত্রীকরণ আলোচনা শুরু না করতে মন্ত্রীদের নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন

')