literature
 23 Jan 16, 06:44 AM
 731             1

জালিমের জুলুম টেকেনা, টিকে যায় মজলুম II

জালিমের জুলুম টেকেনা, টিকে যায় মজলুম II

জালিমের জুলুম টেকেনা, টিকে যায় মজলুম

টিএস রহমান

হিজরি সনের প্রথম মাস মহররমের দশম দিবসকে ইসলামে আশুরা (দশম দিবস) হিসেবে অভিহিত করা হয়। সেমিটিক ধর্মত্রয় ইহুদি-ঈসায়ী-ইসলামে এ দিবসের পূর্বাপর গুরুত্ব যা-ই থাক না কেনো, মুসলমানদের কাছে এটি একটি যারপরনাই শোকের দিন। হিজরি ৬১ অব্দের ১০ই মহররম। ঘটনাক্রমে সেটি ছিলো ৬৮০ খ্রিস্টীয় সনের ১০ই অক্টোবর। এই দিনেই কারবালার ময়দানে ঘটেছিলো ইসলামের ইতিহাসের চরম নিন্দনীয় এবং হৃদয়বিদারক ঘটনাটি যা আশুরা নামেই মুসলমানগণ অতিশয় বেদনার সাথে স্মরণ করে থাকেন।

মক্কাবিজয়ের সময় দায়ঠেকে ইসলাম গ্রহণকারী আবুসুফিয়ান ও হিন্দের অবিশ্বাসী সন্তান ছিলেন মুয়াবিয়া। এই মুয়াবিয়ার বিপথগামী-নিপীড়ক-মদ্যপ পুত্র ইয়াজিদের নির্দেশে বর্তমান ইরাকের ফোরাত নদীর তীরে কারবালার মরুপ্রান্তরে মহানবী হযরত মুহম্মদ (দঃ)-এর প্রাণপ্রিয় দৌহিত্র ইমাম হোসাইন (রাঃ)-কে তাঁর আত্মীয়বর্গ-সুহৃদ-শুভাকাঙ্ক্ষীসহ সপরিবারে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়। কিন্তু ইতিহাসের শিক্ষা হলো, পুরো পরিবারসহ নিহত হলেই সবংশে নির্বংশ হয় না কেউ !

অবৈধ ক্ষমতালোভী কুচক্রী-বিকারগ্রস্ত ইয়াজিদের হাজার হাজার সশস্ত্র সৈন্যের বিপক্ষে ইমাম হোসাইনের লোকসংখ্যা ছিলো একশরও কম। এঁদের ভেতরে অনেকেই শিশু এবং নারী। কেউ কেউ জ্বরাক্রান্ত। পেশাদার সৈনিক তো হাতেগোণা ক’জনমাত্র। নরপশু ইয়াজিদের সৈন্যরা ইমাম-শিবিরের প্রাণধারণের যাবতীয় দ্রব্যের সরবরাহ বন্ধ করে দিয়েছে। বন্ধ করে দিয়েছে পানীয়জলের একমাত্র উৎস ফোরাতের পানির জোগান। কিন্তু চরম বিস্ময়কর ব্যাপার হলো, এই অবর্ণনীয় দুর্যোগ-দুর্ভোগের মধ্যেও ইমাম-শিবিরের একটি শিশুও নতি-স্বীকার বা আত্মসমর্পণের পক্ষে ছিলেন না। কী অপূর্ব তাঁদের বিশ্বাসের জোর ! ধর্ম রক্ষার্থে, সত্যপ্রতিষ্ঠায় সেই অভুক্ত-তৃষ্ণার্ত-পীড়িত মানুষগুলি রুখে দাঁড়িয়েছিলেন নিষ্ঠুর জুলুমবাজদের বিরুদ্ধে। পার্থিব পরাজয় এবং মৃত্যু নিশ্চিত জেনেও তাঁরা মাথা নত করেন নি, আত্মসমর্পণ করেন নি। অকল্পনীয় ছিলো তাঁদের মনোবল যা পৃথিবীর ইতিহাসে কখনও দেখা যায় নি।

এই অসমশক্তির যুদ্ধটি ছিলো ধর্মের সত্য বনাম অধর্মের মিথ্যার যুদ্ধ, যাথার্থ্য বনাম অযাথার্থ্যের যুদ্ধ, বিশ্বাস বনাম অবিশ্বাসের যুদ্ধ, মজলুম বনাম জালিমের যুদ্ধ। প্রকৃতপক্ষে এটি ছিলো সত্যকে মিথ্যার উপরে প্রতিষ্ঠার লড়াই। এই সমরে জিতে যায় নিষ্ঠুর জুলুমবাজেরা। কিন্তু আখেরে কি তারা জিততে পেরেছিলো? এর একটিইমাত্র উত্তর, না। জালিম কখনও বিজয়ী হয় না, হয়তো বা সাময়িকভাবে জিতে যায় সে।

মেঘ ও কুয়াশা কখনও কখনও সূর্যকে ঢেকে দেয়। তারা পাহাড়কে ঢেকে ফেলতে পারে কিন্তু তাকে টলাতে পারে না, সরাতেও পারে না। পাহাড় অটল !!

Comments

zakir hossain

2016-08-17 09:34:09


the word is always true

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন

')