sports
 12 Sep 18, 05:43 AM
 28             0

সালভাদর বিপক্ষে ৫-০ গোলে জয়ী ব্রাজিল।।  

সালভাদর বিপক্ষে ৫-০ গোলে জয়ী ব্রাজিল।।   

স্পোর্টস ডেস্কঃ রিচার্লিসনের জোড়া গোলে অপেক্ষাকৃত দুর্বল প্রতিপক্ষ সালভাদরকে উড়িয়ে দিয়েছে ব্রাজিল। বাংলাদেশ সময় আজ বুধবার সকালে যুক্তরাষ্ট্রের ম্যারিল্যান্ডে এল সালভাদরকে ৫-০ গোলে হারিয়েছে তিতের শিষ্যরা। চতুর্থ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে দলকে এগিয়ে দেন নেইমার। রিচার্লিসন প্রতিপক্ষের ডি-বক্সে ফাউলের শিকার হলে পেনাল্টি পায় ব্রাজিল। ১৬ মিনিটের মাথায় দলের পক্ষে দ্বিতীয় গোলটি করেন রিচার্লিসন। ৩০তম মিনিটে দারুণ এক পাল্টা আক্রমণে ব্যবধান আরো বাড়ান বার্সেলোনা তারকা কুতিনহো। এই গোলে এসিস্ট করেন নেইমার। দ্বিতীয়ার্ধের পঞ্চম মিনিটেই ৪-০ গোলে এগিয়ে যায় ব্রাজিল। এপর্যায়ে নিজের দ্বিতীয় ও দলের পক্ষে চতুর্থ গোলটি করেন রিচার্লিসন। রিচার্লিসন এই ম্যাচেই প্রথম ব্রাজিলের প্রথম একাদশে নামার সুযোগ পান। ৯০ মিনিটের মাথায় পঞ্চম গোলটি করেন মারকুইনসহো।

 

লুইস এনরিকের অধীনে রীতিমতো উড়ন্ত সূচনা করেছে স্পেন। বার্সেলোনার এই সাবেক কোচের অধীনে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ইংল্যান্ডকে ২-১ গোলে হারিয়েছিল স্প্যানিশরা। দ্বিতীয় ম্যাচে উড়িয়ে দিল বিশ্বকাপের রানারআপ দেশ ক্রোয়েশিয়াকে। উয়েফা নেশন্স লিগের গ্রুপ-৪ এর ম্যাচে গতকাল মঙ্গলবার রাতে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে ৬-০ গোলে জিতেছে স্পেন। ক্রোয়াটদের ইতিহাসে এতো বড় জয়ের রেকর্ড নেই আর একটিও। এর আগে কখনো পাঁচ গোলের বেশি হজম করে নি তারা। ঘরের মাঠের ম্যাচটিতে ৬ গোলের প্রথমটি পেতে ২৪ মিনিট পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয় স্বাগতিক স্পেনকে। দলের পক্ষে প্রথম গোলটি করেন সাউল নিগেজ। ইংল্যান্ডকে হারানো ম্যাচেও প্রথম গোলটি আসে তার পা থেকেই। মিনিট নয়েক বাদে জোরালো শটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন রিয়াল মাদ্রিদের মিডফিল্ডার মার্কো অ্যাসেনসিও। প্রায় ২৫ গজ দূর থেকে অ্যাসেনসিও করা শটটি স্রেফ চেয়ে দেখেছেন ক্রোয়াট গোলরক্ষক। দেশের জার্সিতে এটিই অ্যাসেনসিওর প্রথম গোল। ৩৫তম মিনিটে তৃতীয় গোলটি পায় স্পেন। এবারে নিজেদের জালেই বল জড়ান ক্রোয়াট গোলরক্ষক লভ্রেন কালিনিচ। এতে অবশ্য পুরো কৃতিত্ব অ্যাসেনসিওর। তার বাঁকানো শট ক্রসবারে লেগে ফেরত আসার পথে কালিনিচের পিঠে লেগেই জালে জড়িয়ে যায়। ৩ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় স্পেন। বিরতি থেকে ফিরে চতুর্থ মিনিটে গোল উৎসব জারি রাখেন রদ্রিগো। ৫৭তম মিনিটে পঞ্চম গোলটি করেন স্পেন অধিনায়ক সার্জিও রামোস। আর ম্যাচের ৭০ মিনিটে শেষ গোলটি করে গোল উৎসবের ইতি টানেন ইস্কো অ্যালার্কন। উয়েফা নেশন্স লিগের গ্রুপ-৪'এ দুই ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলে একাই রাজত্ব করছে স্পেন। ইংল্যান্ড ও ক্রোয়েশিয়ার পয়েন্ট এখনো শূন্য। এদিকে অন্য ম্যাচে, গত শুক্রবার রাতে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে গুয়েতেমালার বিপক্ষে সহজ জয়ের পর ভাবা হচ্ছিলো লিওনেল মেসিকে ছাড়াই হয়তো এগুতে পারবে আর্জেন্টিনা। কিন্তু শক্ত প্রতিপক্ষের বিপক্ষে ম্যাচ হতেই বেরিয়ে এলো আর্জেন্টিনার দুর্বলতা। কলম্বিয়ার বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচে গোলশূন্য ড্র করেছে দুই বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। স্বেচ্ছা বিরতিতে জাতীয় দলের সাথে নেই দলের সেরা তারকা লিওনেল মেসি। এছাড়াও গুয়েতেমালার বিপক্ষে দলেও বেশ কয়েকটি পরিবর্তন আনেন অন্তর্বর্তীকালীন কোচ লিওনেল কালোনি। পরিবর্তিত খেলোয়াড়েরা নিজেদের মেলে ধরতে ব্যর্থ হলে ড্র নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় আর্জেন্টিনাকে। নিউ জার্সির মেট লাইফ স্টেডিয়ামে পুরো ম্যাচেই আধিপত্য বিস্তার করে খেলেছে কলম্বিয়া। পুরো ম্যাচে ৫৪ শতাংশ বল দখল ছিলো কলম্বিয়ার দখলেই। তবে ম্যাচে ১২ বার কলম্বিয়ার রক্ষণে হানা দিয়েছে আর্জেন্টিনা। যা বারবার প্রতিহত হয়েছে কলম্বিয়ার গোলরক্ষক ডেভিড ওসপিনার কাছে। কম যায়নি কলম্বিয়াও। তারাও ৭টি শক্তিশালী আক্রমণ সাজালেও নিজেদের ব্যর্থতায় গোল পেতে ব্যর্থ হয়। দ্বিতীয়ার্ধে পরিবর্তিত খেলোয়াড় হিসেবে মাঠে নেমে আর্জেন্টিনার খেলায় গতি বাড়ান পাওলো দিবালা। মাউরো ইকার্দির সাথে মিলে বেশ কয়েকবার গোলের সুযোগ তৈরি করেন। কিন্তু লক্ষ্যভেদ করতে ব্যর্থ হলে গোলশূন্য ড্র'তেই শেষ হয় ম্যাচ।

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন

')