sports
 09 Jan 19, 11:21 AM
 28             0

বিপিএল ম্যাচ-৭।।চিটাগংকে হারিয়ে টুর্নামেন্টের প্রথম জয় পেল সিলেট সিক্সার্স  

বিপিএল ম্যাচ-৭।।চিটাগংকে হারিয়ে টুর্নামেন্টের প্রথম জয় পেল সিলেট সিক্সার্স   

স্পোর্টস ডেস্কঃ নিজেদের প্রথম ম্যাচে হার দিয়ে শুরু করলেও বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচেই জয়ে ফিরেছে ডেভিড ওয়ার্নারের সিলেট সিক্সার্স। চিটাগং ভাইকিংসের বিপক্ষে ৫ রানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে দলটি। মিরপুর শের ই বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আজ দিনের প্রথম ম্যাচে সিলেট সিক্সার্সের শুরুটা হয় ভয়াবহ। দলের মাত্র ৬ রানেই নেই টপ অর্ডারের তিন ব্যাটসম্যান। কিন্তু সেখান থেকে শক্ত হাতে ব্যাট ধরেন সিলেট অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার। তাকে সঙ্গ দেন তরুন আফিফ হোসেন ধ্রুব ও নিকোলাস পুরান। তাদের যৌথ চেষ্টায় দলীয় রান দাঁড়ায় ১৬৮। ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই ছক্কা হাঁকিয়ে বড় শুরুর আভাস দিচ্ছিলেন আফগান মোহাম্মদ শাহজাদ। তবে চতুর্থ বলেই সিলেট অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নারের দুর্দান্ত এক ক্যাচে ফেরেন তিনি। তাসকিন আহমেদের বলে মাত্র ৬ রান করেই ফেরেন এই আফগান।

ওপেনার ডেলপোর্টের সঙ্গে ভালোই সঙ্গ দেন বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুল। আগের ম্যাচে মাত্র ৩ রান করে আউট হয়ে ফিরলেও এদিন বেশ ভালোই ব্যাট চালান তিনি। কিন্তু দলীয় ৬৩ রানে আশরাফুলকে রেখে বিদায় হন ডেলপোর্ট। ২২ বলে ২৮ রান করে লামিচানের হাতে রান আউট হয়ে ফেরেন তিনি। কিছু সময় দলকে এগিয়ে নিলেও ২২ রান করে ফেরেন আশরাফুল। ২৩ বলে ৩ চারের সাহায্যে এই রান তুলে তাসকিন আহমেদের বলে সাব্বির আহমেদের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন তিনি। তার মাত্র এক ওভার পরই ফেরেন চিটাগং অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমও। ৬ বলে ৫ রান করে অলোক কাপালির বলে ফেরেন তিনি।৭ রানে ফেরেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। সিকান্দার রাজা ম্যাচের ফলাফল নির্ধারণে ভালোই ব্যাট চালাচ্ছিলেন কিন্তু তাসকিন আহমেদ তার শেষ স্পেলে দুর্দান্ত বোলিং করে রাজার সঙ্গে ফেরালেন নাঈম হাসানকেও। দুই চার ও দুই ছক্কায় ২৮ বলে ৩৭ করে ফেরেন রাজা। তার ফেরার এক বল পরই শূন্য রানে ফেরেন নাঈমও। শেষ বল পর্যন্ত চেষ্টা করেও দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছাতে পারেননি রবি ফ্রাইলিনক। ২৪ বলে ৪৪ রান করে অপরাজিত থাকেন তিনি। সিলেটের হয়ে ৪ উইকেট নেন তাসকিন আহমেদ। এছাড়া ২ উইকেট নেন অলক কাপালি।

টসে জিতে এর আগে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুটা মোটেও ভালো হয়নি সিলেটের। দলীয় মাত্র ৬ রানেই ৩ উইকেট হারায় তারা। বাংলাদেশের তিন তারকা ব্যাটসম্যান লিটন দাশ, নাসির হোসেন ও সাব্বির রহমান যথাক্রমে ০, ৩ ও ০ রানে আউট হন। তাদের তিনজনের দু’জনকেই (লিটন, সাব্বির)বিদায় করেন দক্ষিণ আফ্রিকান পেসার রবি ফ্রাইলিনক। তবে এরপর দলের হাল ধরেন ওয়ার্নার ও আফিফ। আফিফ দ্রুত ব্যাট চালিয়ে ২৮ বলে ৫টি চার ও ৩টি ছক্কায় ৪৫ করেন মাঠ ছাড়েন। কিন্তু বিপিএল ক্যারিয়ারে প্রথম হাফসেঞ্চুরি তুলে নেন ওয়ার্নার। ৪৭ বলে ২টি চার ও একটি ছক্কায় সর্বোচ্চ ৫৯ করে তিনি ফ্রাইলিনকের বলে আউট হন। শেষ দিকে নিকোলাস পুরানের ব্যাটে ভালো সংগ্রহ দাঁড় করে সিলেট। ৩২ বলে সমান ৩টি চার ও ছক্কায় ৫২ রানে অপরাজিত থাকেন এই ক্যারিবিয়ান। প্রোটিয়া পেসার ফ্রাইলিনক ৪ ওভারে ২৬ রান দিয়ে ৩টি উইকেট তুলে নেন। এছাড়া একটি করে উইকেট পান নাঈম হাসান ও খালেদ আহমেদ।

ম্যান অপ দ্যা ম্যাচঃ- নিকোলাস পুরান (সিলেট সিক্সার্স)।

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন

')