News71.com
 Health
 05 Aug 23, 01:49 PM
 214           
 0
 05 Aug 23, 01:49 PM

অনেকে ডেঙ্গু এনকেফেলাইটিসেও আক্রান্ত হচ্ছে॥সতর্ক বার্তা

অনেকে ডেঙ্গু এনকেফেলাইটিসেও আক্রান্ত হচ্ছে॥সতর্ক বার্তা

নিউজ ডেস্ক: এডিস মশার ভাইরাস ভয়ংকর রূপ নিচ্ছে। মশার এই ভাইরাসে অনেকেই ডেঙ্গু এনকেফেলাইটিসে (এক্সটেনডেড ডেঙ্গু শক সিনড্রোম) আক্রান্ত হচ্ছেন। তবে এই আক্রান্তের হার কম। তবে এনকেফেলাইটিসে আক্রান্তদের মধ্যে মৃত্যুর হার সর্বাধিক। আক্রান্ত হলে সাধারণত কেউ বাঁচে না। এই ভাইরাসটি মস্তিষ্ককে আক্রান্ত করে। ওই সময় জ্বরের সঙ্গে খিঁচুনি হয় এমনকি রোগী অজ্ঞানও হয়ে পড়ে। এ সময় রোগীকে দ্রুত বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের কাছে বা হাসপাতালে নিতে হবে বলে মত দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। এডিস মশার কামড়ে ডেঙ্গু এখন প্রায় মহামারি আকার ধারণ করেছে। এই ডেঙ্গু রোগ দেশের সব জেলায় ছড়িয়ে পড়েছে। অনেক জেলায় রোগীর হার রাজধানী ঢাকার চাইতেও বেশি। এভাবে দেশজুড়ে রোগী বাড়তে থাকলে মহামারি দেখা দিবে এবং চিকিৎসা সেবায় মারাত্মক সংকট শুরু হবে। এখনই সময় থাকতে মশা নিধনের উপর সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়েছেন চিকিত্সক ও কীটতত্ত্ববিদরা।

 

চিকিৎসকরা বলছেন, ডেঙ্গু এনকেফেলাইটিস মূলত মস্তিষ্কে আক্রমণ করে থাকে। অল্প সময়ে রোগী মারা যান। এজন্য এই রোগের হাত থেকে বাঁচতে হলে মশা নিধনের কোন বিকল্প নাই। তাই মশা মারতে হবে। এদিকে মশা নিধনের কার্যক্রমও ততটা সচল নয়। অনেকটা ঢিলেঢালা ভাব। কাউন্সিলরদের কার্যক্রম নিয়ে নগরবাসী সন্দিহান। মশা নিধন কার্যক্রম নিয়ে দুর্নীতি অনিয়মের খবর তো রয়েছেই। কিন্তু কারো যেন হুশ ফিরছে না।এ প্রসঙ্গে প্রখ্যাত নিউরোলজিস্ট অধ্যাপক ডা. কাজী দীন মোহাম্মদ বলেন, ‘এই ডেঙ্গু এনকেফেলাইটিস ব্রেইনে আক্রমণ করে থাকে। এতে রোগী খুব দ্রুত সময়ে খিচুনি দিয়ে অজ্ঞান হয়ে পড়েন। এজন্য রোগীকে দ্রুত হাসপাতালে নিতে হবে। তিনি বলেন, যেহেতু এটা এডিস মশার কামড়ে হয় সেজন্য মশা নিধন করতে হবে। মশা নিধনে ব্যর্থতার কারণে এই রোগে বিপুল সংখ্যক লোক আক্রান্ত হবে, সেটা কারো কাম্য নয়। নিউরোলজিস্ট অধ্যাপক ডা. বদরুল আলম বলেন, ‘এই রোগে ব্রেইন মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। আক্রান্ত হলে সাধারণত কেউ বাঁচে না। এই পরিসংখ্যান আমাদের কাছে রয়েছে।  তাই এ ধরনের উপসর্গ হলে বা দেখা দিলে কালবিলম্ব না করে রোগীকে হাসপাতালে নিতে হবে। আর মশা নিধনের উপর সর্বাধিক গুরুত্ব দিতে হবে। নইলে পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ ধারণ করতে পারে।

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন